ফেনী
শুক্রবার, ১৯শে আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, বিকাল ৪:২৮
, ২০শে মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি
শিরোনাম:

ফেনী কোর্ট পরিদর্শককে ৭২ ঘন্টার মধ্যে প্রত্যাহারের আল্টিমেটাম

ফেনী কোর্ট পরিদর্শ গোলাম জিলানীকে আগামী ৭২ ঘন্টার মধ্যে প্রত্যাহার ও বিভাগীয় শাস্তির আল্টিমেটাম দিয়েছেন ফেনী জেলা আইনজীবী সমিতি।সোমবার বিকালে সমিতির জরুরী সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে ও সভার সিদ্ধান্তসমুহ রেজুলেশন পিন্ট করে চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ও জেলা জজের মাধ্যমে পুলিশ সুপার ও পুলিশের উচ্চ মহলের নজরে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন সংগঠনটির সভাপতি এডভোকেট নুর হোসেন।

২ জানুয়ারী ফেনীর আদালতের এক আইনজীবীকে শারীরিকভাবে লাঞ্চিত করেন কোর্ট পুলিশ। ক্ষতিগ্রস্ত আইনজীবী বিষয়টি প্রথমে মৌখিক ও ৪ জানুয়ারী লিখিত বিচার চাইলেন। এ ঘটনায় জরুরি সভা আহবান করে আইনজীবী সমিতি।

আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট নুর হোসেন বলেন, এ বিষয়ে লিখিত বিচার চেয়েছেন তাই জরুরি সভা ডেকেছেন। সমিতির একাদিক সিনিয়র আইনজীবীরা অভিযোগ করে বলেন, ফেনীর আদালতে যোগদানের পর থেকে জিলানী বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। দুই বছরের বেশি সময় ধরে এখানে কর্মরত রয়েছে। টাকা ছাড়া তিনি কিছু বুঝে না। সব অনিয়ম টাকা পেলে নিয়মে পরিণত হয়ে যায়। টাকা না দিলে জামিননামার কপি ও আটকে রাখেন। তারা আরও বলেন, এতে প্রতিবাদ করলে অ্যাডভোকেট নাজমুস সাকিবকে লাঞ্ছিত করে জিলানী।

এ বিষয় অ্যাডভোকেট নাজমুস সাকিবের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার মনির আহমেদ নামে এক ব্যক্তির জামিন দেন আদালত। জামিননামাটি যথা সময় না পৌঁছানোর কারণ জানতে চাইলে কোর্ট পরিদর্শক জিলানী আমার মোবাইল ফোনটা কেড়ে নিয়ে তাকে অফিস থেকে ধাক্কা দিয়ে বের করে দেয়। তিনি বলেন, পুরো ঘটনাটি তার রুমে সিসি ক্যামেরা রয়েছে। এ বিষয়ে তিনি চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটকে অবহিত করেছেন ও আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নিকট লিখতি অভিযোগ করেছেন।

ট্যাগ :

আরও পড়ুন


Logo